Header Ads

জাতীয় রাজনীতিতে তৃণমূল কি মূল্যহীন ?


জাতীয় রাজনীতিতে তৃণমূল কি মূল্যহীন ?

টলি বাংলা ওয়েব ডেস্ক
অতীত ইতিহাস এটাই প্রমাণ করে যে - তৃণমূল যতবার জাতীয় রাজনীতিতে নাক গলাবার চেষ্টা করেছে, ততবার প্রত্যাখ্যান হজম করতে হয়েছে।
কংগ্রেস সহ বাম ও অন্যরা প্রণব মুখার্জিকে রাষ্ট্রপতি পদে মনোনয়ন করলেও, তৃনমুল বিরোধিতা করে মুখ পুড়িয়েছে। আন্না হাজারেকে নিয়ে সভা করতে গিয়ে আন্নাজি প্রথমে কথা দিয়েও যাননি। লালু-মুলায়ামদের নিয়ে জোট করতে গিয়েও লালু-মুলায়াম পাত্তা দেননি, এমন বহু উদাহরণ আছে।



দিল্লিতে গত দেড়-দুই বছর ধরে ছোটাছুটি করে ফেডারেল সরকারের তত্ত্ব প্রচার করেও পাত্তা পায়নি তৃণমূল। দিল্লিতে এখন জোর আলোচনা চলছে উক্ত দলের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে। কারণ রাফায়েল সহ অসংখ্য ইস্যুতে এই দল নীরব। তিন তালাক নিয়ে দলের মৌলবাদী অবস্থান। গত সাড়ে চার বছরে সংসদে এমন কোনো জোরালো অবস্থান তৃণমূল নেয় নি, যাতে মোদি সরকার বিপন্ন বোধ করে। বরং বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব সমর্থন না করে এই দল বিজেপিকে সুবিধা করে দেয়।



মোদী মুখ্যমন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রী হলে তার কাছে তৃণমূল নেত্রী পুষ্পস্তবক পাঠান। রাহুল সভাপতি হলে চুপ থাকেন। পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে কংগ্রেস বা রাহুলের অবদান খুঁজে পায় না তৃণমূল। রাহুলের নেতৃত্ব এই দলের কাছে বিষবৎ। বাংলায় নানা কায়দায় তৃণমূল কংগ্রেস দলটাকে ভেঙেছে বলে কংগ্রেস দাবি করে থাকে। বিজেপি ছাড়া তৃণমূল অন্য কোন দলকে বাংলায় জায়গা দিতে চায় না বলে বিরোধীদের দাবি। এই দল আগাপাশতলা যেভাবে সারদা, নারদা অন্যান্য নানান দুর্নীতিতে ভেসে গেছে কোন ভাবে মুক্তি পাবার উপায় নেই। দুর্নীতির দাগ অন্য সব দলে বর্তমান (বামেরা ব্যতিক্রম)। বিরোধীদের মতে তৃণমূলের মাথা থেকে পা অবদি দূষিত - এই বিষয়ে দিল্লিতে খুব চর্চা হয়।

দিল্লির কাগজে লেখা হয় বাংলার অপশাসন ও গণতন্ত্রের কথা। জাতীয় দলগুলোর বহু নেতারা মনে করেন যে, কোনোভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তৃণমূল বাংলায় শূন্য হয়ে যেতে পারে।
আসন্ন নির্বাচনে বিজেপি ও তৃণমূল সমানভাবে আসন ভাগাভাগি করে নেবে এমন চিত্র বেশ স্পষ্ট বলে বিরোধীদের একাংশের মত। বাংলায় বাম ও কংগ্রেসকে পা ফেলতে দেবে না তৃণমূল নেত্রী এটাও রাহুল জানেন। তাই রাহুল বাংলার কংগ্রেসকে সংগঠন গড়ার আহ্বান জানিয়েছেন। রাহুল তৃণমূল নেত্রীকে বিশেষ পছন্দ করেন না বলেই বিশেষ সূত্রে খবর।


সাম্প্রতিক পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের পরে তৃণমূলের ফেডারেল সরকারের ফাঁদ মাঠে মারা গেছে। বাংলার ভোটে তৃণমূল একা লড়ার প্রস্তুতি নিতে গিয়ে বিজেপি বিরোধী মহাজোটে তৃণমূল অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাবে - এমনই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকেদের একাংশের। দিল্লি নেতারা তাই আলোচনা করেন - যদি মোদী আসন্ন ভোটের ৪০-৫০ টি আসন কম পায়, তাহলে তৃণমূল সবার আগে সেটা পূরণ করবে সিবিআই থেকে বাঁচতে। রাহুল কোন ভাবেও তৃণমূলকে সিবিআই থেকে বাঁচাবে না। কারণ বাংলায় তাকে তৃণমূলকে ক্ষমতাচ্যুত করতে হবে। এ ব্যাপারে বামেরা রাহুলকে সাহায্য করবে।

বিশেষ প্রতিবেদন - দীপঙ্কর চক্রবর্তী


Credit
Photo : Google

অমিত শাহ কি চ্যালেঞ্জ করলেন মমতাকে

দেখে নিন এই লিঙ্কে ক্লিক করে


For the all News Update Please follow our Website www.tollybangla.com
Subscribe our Youtube Channel Tolly Bangla Youtube
Follow Us on Twitter Tolly Bangla twitter
Like our Facebook Page Tolly Bangla Facebook Page

( প্রিয় পাঠক / পাঠিকা , পোস্টটিতে  লাইক, মন্তব্য ও শেয়ার করুন এবং নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের পেজে লাইক করুন )

No comments

Powered by Blogger.