Header Ads

হাড় কাঁপান শীতে বামকর্মীরা আশ্রয় নিয়েছেন ব্রিগেড ময়দানে


হাড় কাঁপান শীতে বামকর্মীরা আশ্রয় নিয়েছেন ব্রিগেড ময়দানে

টলি বাংলা ওয়েব ডেস্ক
গ্রাম নগর, মাঠ পাথার, বন্দরে তৈরি হও -
ঘরে ঘরে ডাক পাঠাই, তৈরি হও জোট বাঁধো।

উপরিউক্ত দুটি লাইনের উদাহরণ টেনে বলা যায় আগামীকাল ৩রা ফেব্রুয়ারি। বামেদের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশ। অনেকদিন ধরেই প্রচার চলছে এই ব্রিগেডের। এই ব্রিগেড সমাবেশের কর্মসূচি বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দেওয়ার কর্মসূচি চালিয়েছেন বামেদের নেতা-কর্মীরা।



এই ব্রিগেড সমাবেশে বামফ্রন্টের তরফ থেকে বিভিন্ন দলগুলিকে আনুমানিক নয় লক্ষ জমায়েতের লক্ষ্য বেঁধে দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন জেলা থেকে বহু মানুষ ইতিমধ্যেই এসে পড়েছেন। মাথা গোঁজার জন্য কোনও বড় হোটেল নেই, ঘর নেই, নিদেন পক্ষে কোনও স্টেডিয়ামও নেই। হাড় কাঁপানো ঠান্ডাতেও রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা বাম কর্মীরা আশ্রয় নিয়েছেন ব্রিগেডে। লক্ষ্য আগামি ৩রা ফেব্রুয়ারি বামেদের ব্রিগেড সমাবেশ। এই ঠাণ্ডায় বাম কর্মী-সমর্থকরা শুধু ব্রিগেড সমাবেশকে সাফল্য মণ্ডিত করার জন্য লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। শত প্রতিবন্ধকতা থাকা সত্ত্বেও তাদের মধ্যে রয়েছে লড়াইয়ের মানসিকতা। বাম নেতৃত্বের মতে তাদের সাথে মানুষ আছে, আবেগ আছে, আর আছে লাল ঝান্ডার প্রতি অগাধ আস্থা, ভরসা, ভালোবাসা। তাই আগামীকালের ব্রিগেড কর্মসূচিকে সফল করার সর্বাঙ্গীণ প্রয়াস চলছে।
প্রবল ঠাণ্ডায় ব্রিগেড ময়দানে বাম কর্মীরা
তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশের পর বামেদের এই ব্রিগেড সমাবেশ সামনের নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। ক্রমাগত নির্বাচনে বামেদের ভোট কমলেও এই ব্রিগেড যে বামেদের নির্বাচনের আগে বাড়তি অক্সিজেন যোগাবে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। সোশ্যাল মিডিয়াতে বামেরা ২০১৯ ব্রিগেড সমাবেশের যে ক্যাম্পেইন চালিয়েছে তাতে বহু মানুষ তাদের মতামত সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছে। দেখা গেছে এক ঝাঁক নতুন উপচে পড়া তারুণ্যের ভিড়।



সামনের নির্বাচনে বামফ্রন্ট যদি এই তরুণ ভোটের একটা বড় অংশ নিজেদের দিকে টানতে পারে তাহলে রাজ্য রাজনীতিতে আবার কামব্যাক করতে পারে বামেরা। রাজ্য প্রতিনিয়ত তরজা চলছে এখানে তৃণমূলের সঙ্গে লড়াই বিজেপির। কিন্তু এই ব্রিগেড ময়দানে ব্রিগেড সভা করার সাহস দেখাতে পারেনি গেরুয়া শিবির।




অন্যদিকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য এই সভায় উপস্থিত থাকবে কিনা সে নিয়ে এখনো সবুজ সংকেত পাওয়া যায়নি। তবে সি.পি.এমের তরফ থেকে তার কাছে আর্জি জানানো হয়েছে - তিনি যেন এই ব্রিগেড সমাবেশ সম্পর্কে তার মন্তব্য অন্তত লিখে পাঠান। এবারের ব্রিগেডের নয়া আকর্ষণ ছাত্রনেতা কানাইয়া কুমার। অর্থের অভাব, হাড় কাঁপানো ঠান্ডা ও নানান রকম প্রতিবন্ধকতা নিয়ে জেলার নানান প্রান্ত থেকে আসা বাম কর্মীরা তাই অপেক্ষারত আগামীকালের ব্রিগেড সমাবেশের জন্য। বাম নেতৃত্বের মতে এই ব্রিগেড সমাজের খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষের ব্রিগেড।


সকাল থেকে ব্রিগেড মুখি রাজ্যের জনতা




ধর্মতলায় কাতারে কাতারে ব্রিগেডগামী জনতা


বামেদের শেষ মুহূর্তের ব্রিগেড প্রস্তুতির লাইভ আপডেট

বামেদের ব্রিগেড নিয়ে ফুরফুরে মেজাজে বিমান বসু  কি বললেন


Credit
Photo : Collected


For the all News Update Please follow our Website www.tollybangla.com
Subscribe our Youtube Channel Tolly Bangla Youtube
Follow Us on Twitter Tolly Bangla twitter
Like our Facebook Page Tolly Bangla Facebook Page


( প্রিয় পাঠক / পাঠিকা , পোস্টটিতে  লাইক, মন্তব্য ও শেয়ার করুন এবং নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের পেজে লাইক করুন )

No comments

Powered by Blogger.